ঢাকায় শ্রমিক নেতা দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে মহাসমাবেশে যোগদান

0
ছবিঃ ঢাকায় রাজধানীর মতিঝিলের দিলকুশায় প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে মহাসমাবেশে যোগদান

রাইজিং ডেস্কঃ 

আন্তর্জাতিক মহান মে দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ আন্তঃজেলা ট্রাক-চালক ইউনিয়ন শ্যামপুর-কদমতলী শাখার সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক শ্রমিক নেতা মোঃ দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে ঢাকায় রাজধানীর মতিঝিলের দিলকুশায় ১ মে ২০১৮ ইং অনুষ্ঠিত মহাসমাবেশে বিশাল মিছিল নিয়ে যোগদান করা হয়। এসময় তার সাথে শাখার বিভিন্ন নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় তিনি বলেন, মে মাসের প্রথম দিন মে দিবস। আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস। শ্রমিক আন্দোলন ও সংগঠন বিশ্বব্যাপী বিকশিত হয়ে ওঠার উষালগ্নে ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে দল-মত নির্বিশেষে শ্রমিকশ্রেণির ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন ব্যাপক ও তীব্র রূপ নিয়ে আত্মপ্রকাশ করে। ১৮৮৬ সালের ৩ মে শিকাগো শহরের এক কারখানায় শ্রমিক সমাবেশ চলার সময় বিনা উস্কানিতে পুলিশ গুলিবর্ষণ করে। এতে ছয়জন নিহত ও বহু আহত হয়। এই হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে পর দিন হে মার্কেটের সমাবেশে বিস্ফোরিত বোমায় চার শ্রমিক নিহত ও বহু আহত হয়। এই আন্দোলনের অভিযোগে চার শ্রমিক নেতা পার্সনস, স্পাইজ, ফিসার ও এঞ্জেলকে ফাঁসি, দুই শ্রমিক নেতা ফিলডেন ও স্কোয়াবকে দীর্ঘমেয়াদি কারাদ-প্রদান করা হয়। অন্য এক সাজাপ্রাপ্ত শ্রমিক নেতা লিংগকে জেলের অভ্যন্তরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। এই নৃশংস ও বর্বরোচিত হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে ফরাসি বিপ্লবের শতবার্ষিকী ১৮৮৯ সালে ইউরোপ ও আমেরিকার ২০টি দেশের শ্রমিক নেতারা প্যারিসে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে একত্রিত হয়ে পরের বছর ১৮৯০ সালের ১ মে দিবস পালনের ঘোষণা দেয়।

তিনি আরও বলেন, ঐ বছর থেকে আজও পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শ্রমিক ও শ্রমজীবী জনগণ ‘দুনিয়ার মজদুর এক হও’ শ্লোগান নিয়ে দিবসটি পালন করে আসছে। এত সুদীর্ঘ বছর ধরে বিশ্বের আনাচে-কানাচে, শহরে-বন্দরে, শ্রমিক অঞ্চলে, গ্রামে আর কোনো দিবস পালনের দৃষ্টান্ত ইতিহাসে বিরল। আর দেশবাসী উৎসব হিসেবে ছুটির দিন মহান মে দিবস পালন করে। আমি মহান মে দিবসে দেশের শ্রমিক ও শ্রমজীবী জনগণকে তথা শ্রমজীবীদের’কে রক্তিম অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

Comments

comments