{{theTime}} |   Wed 17 Jan 2018

নামের শৌখিনতাই হতে পারে আপনার বিড়ম্বনার কারণ

প্রকাশঃ বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৭    ১৯:৪৪
সিরাজুল ইসলাম

বাঙ্গালির নামের শৌখিনতা সেই শাহী আমল থেকে আজ পর্যন্ত।।কিন্তু নামের শৌখিনতা অনেক সময় তারই বিড়ম্বনার কারন হয়ে দাড়ায়। নবাংলাদেশের মানুষ অনেকাংশেই শৌখিন, আপনি যদি তাদের নামের দিকে তাকান তাহলেই বুঝতে পারবেন। তিন শব্দের নাম হলো সর্বনিম্ন এবং সর্বোচ্চ বিশ শব্দের নাম। একজনের নাম শুনেছিলাম, "আহসান মোহাম্মদ বিন আবু তৌহিদ আল হাসান মাহমুদ জহির" এটাতে চমকে যাওয়ার কিছু নেই, আরোও বড় চমক আছে। এর চেয়েও বড় বড় নাম আছে। কিন্তু প্রসঙ্গ যখন জন্মসনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট তখন একটা শঙ্কায় আপনাকে ফেলাই যেতে পারে। পাসপোর্ট করতে গিয়ে আপনার যে কাজটা সবার প্রথম প্রয়োজন সেটা জন্মসনদ। আপনি জন্মসনদ তুলে দেখলেন, আপনার নামের ইসলাম কেটে হক হয়ে গেছে, কিংবা মায়ের নামের খাতুন কেটে বেগম। এ আর বড় কি, বাপের নাম ঠিক আছে সেই শুকরিয়া করেন। এমন একটি পরিবার নেই যেই পরিবারের সকল সদস্যের নাম সঠিকভাবে আছে। বাংলা ঠিক আছে তো ইংলিশ ঠিক নেই। অথচ, এই নাম পরিবর্তন কিংবা পরিবর্ধন একটা বাণিজ্যে রুপান্তরিত হয়েছে। শুধুই কি তাই? সংশোধন সময়সাপেক্ষ ব্যাপারও বটে। কদিন আগে আমার এক বন্ধু জন্মসনদ সংশোধন ঠিক করতে গিয়েছিল সাতশো টাকা আর সাত রকমের হয়রানি হয়েছে। শুধুই কি এই সংখ্যাটা একটা? এমন হয়রানির স্বীকার অধিকাংশ মানুষই। তবুও অনেকেই পাসপোর্ট করতে হবে এই তাড়ায় টাকা হোক, হয়রানী হোক, সব মেনে নিয়েও মানুষ জন্মসনদের সংশোধনী করছে। ন্যাশনাল আইডি কার্ডের কথা নাহয় বাদই দিলাম। এখন আসি ব্যক্তিগত সচেতনতা নিয়ে। আমরা কেবল এই সমস্যার গোড়ায় সমাধান আনতে পারি ব্যক্তিগত সচেতনতা দিয়েই। প্রত্যেকটা প্রয়োজনীয় জায়গায় আমাদের ব্যক্তিগত তথ্যগুলো মুখের উপর না বলে আমরা যদি আমাদের তথ্যগুলো কাগজের সাথে মিলিয়ে দেই তাহলেই অনেক অংশে এই সমস্যার সমাধান হবে। হয়রানি থেকে মুক্তি পেতে হলে সবার প্রথম যেটা দরকার সেটা হলো ব্যক্তিগত সচেতনতা। নিজের সকল নামের বা কাগজপত্রের প্রতি আলাদা গুরুত্ব দেয়া।।

 

সিরাজুল ইসলাম

সিরাজুল ইসলাম

[email protected]

লেখক: টেক্সটােইল ইঞ্জিনিয়ার, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিাট। 

সম্পাদক

কাজী এম আনিছুল ইসলাম

ভারপ্রাপ্ত প্রকাশক

মোঃ আব্দুল হামিদ

আমাদের সাথে থাকুন
সদ্য সংবাদ